বাংলাদেশ

‘স্বাধীনতার পরই ফ্রান্সের সঙ্গে বাংলাদেশের বন্ধুত্বের সূচনা হয়’

জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, ফ্রান্স দীর্ঘদিনের বন্ধু রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশ ও ফ্রান্স পার্লামেন্ট বিভিন্ন স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিষয়ে একত্রে কাজ করতে পারে।    তিনি বৃহস্পতিবার প্যারিসে ফ্রান্সের ন্যাশনাল এসেম্বলির ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট ম্যাডাম ক্যারোল ব্যুরো বোননার্ড এর সঙ্গে সাক্ষাৎকালে এসব কথা বলেন। শুক্রবার ঢাকায় প্রাপ্ত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।    এতে বলা হয়, স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী ন্যাশনাল এসেম্বলিতে পৌঁছালে ক্যারোল ব্যুরো বোননার্ড তাকে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানান হয়। এ সময় তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবিসংবাদিত নেতৃত্বে ১৯৭১ সালে বাংলাদেশ স্বাধীন হবার পর থেকেই ফ্রান্সের সঙ্গে বাংলাদেশের বন্ধুত্বের সূচনা। এ বন্ধুত্ব ভবিষ্যতে আরো জোরদার হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। দুই দেশের জাতীয় সংসদ বিভিন্ন স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিষয়ে একত্রে কাজ করার বিষয়টি আলোচনায় প্রাধান্য পায়।    সাক্ষাৎকালে তারা সংসদীয় চর্চা ও রীতিনীতি, নারীর ক্ষমতায়ন ও বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন এবং ব্যবসা-বাণিজ্যসহ দ্বিপাক্ষিক স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিষয়াদি নিয়ে আলোচনা করেন। বাসস  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *