খেলা-ধূলা

‘সেরা ক্রিকেটটাই খেলতে হবে’

আগের ১৩ আসরে দুই বার এশিয়া কাপ ক্রিকেটের ফাইনাল খেলেছিল বাংলাদেশ। দুই বারই ট্রফি না জেতার হতাশায় পুড়তে হয়েছিল বাংলাদেশকে। আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর সংযুক্ত আরব আমিরাতে শুরু হতে চলা এশিয়া কাপের ১৪তম আসরে বাংলাদেশের মূল টার্গেট চ্যাম্পিয়ন হওয়া। জাতীয় দলের ক্রিকেটার মোহাম্মদ মিঠুন বলেছেন, সিনিয়রদের সঙ্গে জুনিয়ররা পারফর্ম করলে সহজেই গ্রুপ পর্ব পার হতে পারবে বাংলাদেশ দল। তবে এজন্য নিজেদের সেরা ক্রিকেটটাই খেলতে হবে বলে উল্লেখ করেছেন এই উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান।   মিরপুর স্টেডিয়ামে গতকাল সকাল থেকে জিম ও স্কিল সেশনে দিন পার করেছেন ক্রিকেটাররা। দুপুরে অনুশীলনের বিরতিতে এশিয়া কাপে বাংলাদেশকে নিয়ে নিজের আশাবাদ জানিয়েছেন মিঠুন। গত জানুয়ারিতে ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজের ফাইনাল খেলার পর দল থেকে বাদ পড়েছিলেন তিনি। এশিয়া কাপের মাধ্যমে আবার ওয়ানডে দলে ফিরলেন এই ক্রিকেটার।   এশিয়া কাপ নিয়ে নিজের আশাবাদ জানাতে গিয়ে মিঠুন বলেছেন, ‘আমি অবশ্যই আশাবাদী কারণ অন্য ফরম্যাটে যেমনই হোক, ওয়ানডেতে কিন্তু বাংলাদেশ যথেষ্ট ভালো। বিশেষ করে গত চার বছর ধরে বাংলাদেশ ভালো করছে।’   মিঠুনের মতে, সিনিয়রদের সঙ্গে জুনিয়ররা অবদান রাখলে গ্রুপ পর্ব পেরিয়ে সুপার ফোরে যাওয়া কঠিন হবে না বাংলাদেশের। তিনি বলেন, ‘সিনিয়র ক্রিকেটারদের সঙ্গে আমরা যারা জুনিয়ররা আছি তারা যদি অবদান রাখতে পারি তাহলে আমার কাছে মনে হয় ভালো হবে। আমাদের আসলে টুর্নামেন্টে মূল লক্ষ্য হলো চ্যাম্পিয়ন হওয়া। তবে প্রথম ধাপটি পার করা তো অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ। সিনিয়র ক্রিকেটারদের সঙ্গে আমরা যারা খেলব তারা যদি অবদান রাখতে পারি আমার মনে হয় খুব সহজেই দ্বিতীয় রাউন্ডে যেতে পারব।’   ধারাবাহিকতা ও দল হিসেবে ছন্দ ধরে রাখতে পারলে টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের ভালো করার সুযোগ দেখছেন মিঠুন। ২৭ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার বলেছেন, ‘বাংলাদেশের ব্যাপারটি আসলে নির্ভর করছে ছন্দের ওপরে। আমরা যদি শুরুটা ভালো পাই আর একটি দল হিসেবে আত্মবিশ্বাসী থাকি এবং আমরা যদি প্রথম ধাপটি ভালোভাবে উতরে যেতে পারি তাহলে ভালো হবে। ক্রিকেট হচ্ছে একটি দিনের খেলা। যে দিনটি যাদের ভালো যাবে তাদের পক্ষে ফলাফল আসবে। সুতরাং অবশ্যই চেষ্টা করব যেন আমাদের দিকে বেশি ছন্দ থাকে এবং সেরা ক্রিকেটটাই খেলার।’   স্কিল অনুশীলন শুরু হলেও এশিয়া কাপ নিয়ে দলগত আলোচনা এখনো সেভাবে শুরু হয়নি বাংলাদেশ দলে। অনুশীলন পরিচালনা করছেন হেড কোচ স্টিভ রোডসই। কোচের সঙ্গে বিস্তারিত আলাপ হয়নি জানিয়ে মিঠুন বলেন, ‘দল ঘোষণার পর আজকে (গতকাল) প্রথম অনুশীলন। আমরা এরই মধ্যে অনুশীলন শুরু করেছি। এখন পর্যন্ত তার (রোডস) সঙ্গে বসা হয়নি সেভাবে।’   গত চার বছরে তিনটি ওয়ানডে খেলেছেন মিঠুন। দলে থিতু হতে পারেননি। এবার ওয়ানডে দলে জায়গা পাকা করতে চান তিনি। গতকাল বলেছেন, ‘দলে সুযোগ পেয়ে দলের জন্য কিছু করা বা নিজের জায়গাটা পাকা করাটাই থাকে মূল উদ্দেশ্য। এরপরেও কখনো হয় কখনো হয় না। মানুষের জীবন সবসময় একরকম যায় না। সব চেষ্টা যে সফল হবে সেটাও না।’  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *