বাংলাদেশ

শেখ হাসিনার বড় বাজেট বাস্তবায়নের সৎ সাহস রয়েছে : সেতুমন্ত্রী

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বড় বাজেট বাস্তবায়ন করার সৎ সাহস রয়েছে বলেই প্রধানমন্ত্রী বড় বাজেট দিয়েছেন।    তিনি বলেন, ‘বড় বাজেট, বড় চ্যালেঞ্জ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বড় বাজেট বাস্তবায়ন করার সাহস রয়েছে তিনি বলেই বড় বাজেট দিয়েছেন।’    দেশের উন্নয়নের স্বার্থে জনগণের জন্য বাজেট পেশ করা হয়েছে উল্লেখ করে কাদের বলেন, দেশের সকল শ্রেণি-পেশার মানুষের সমস্যা বিবেচনা করেই এ বাজেট পেশ করা হয়েছে। তবে বাজেট এখনও পাস হয়নি। আলোচনার পর প্রয়োজনীয় সংশোধনের পর বাজেট পাস হবে।    সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের শুক্রবার জেলার মেঘনা লঞ্চঘাট পরিদর্শনকালে ২০১৮-’১৯ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন।    আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, ২০১৮-১৯ অর্থ বছরের যে বাজেট বৃহস্পতিবার সংসদে পেশ করা হয়েছে, তা নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা হবে। আলোচনার পর প্রয়োজনীয় সংশোধনীর পর বাজেট পাস হবে।    তিনি বলেন, এ বাজেটে কয়েক লাখ মানুষকে সামাজিক নিরাপত্তা বলয়ের আওতায় আনা হয়েছে। এ বাজেটে গরিব মানুষের স্বার্থকে সবচেয়ে বড় করে দেখা হয়েছে। বাজেট নিয়ে বিএনপি নেতাদের বেপরোয়া মন্তব্য দেখে বোঝা যাচ্ছে বাজেট ভাল হয়েছে।    আসন্ন ঈদ যাত্রায় মানুষের ভোগান্তি হবে না আশা প্রকাশ করে সেতুমন্ত্রী কাদের বলেন, সড়ক-মহাসড়ক বর্তমানে যে অবস্থায় রয়েছে তাতে যানজট হবে না।   তিনি বলেন, টোল প্লাজায় ভাংতি টাকার জন্য অনেক সময় যানজট তৈরি হয়। সেজন্য প্রয়োজনীয় ভাংতি টাকা রাখার জন্য সকলের প্রতি অনুরোধ জানানো হয়েছে। ইতোমধ্যে এর সুফল পাওয়া যাচ্ছে।    সেতুমন্ত্রী কাদের বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে আপতকালীন সমস্যা নিরসনে মেঘনা ও গোমতি নদীতে ফেরি সার্ভিস চালুর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। আগামী ১২ জুন থেকে মেঘনা নদীতে ফেরি সার্ভিস চালু করা হবে।    তিনি বলেন, তবে গোমতি নদীতে ড্রেজিং ছাড়া ফেরি সার্ভিস চালু করা সম্ভব হবে না। আগামী ঈদুল আজাহার আগে এ নদীতে ফেরি সার্ভিস চালু করা হবে। এতে উভয় স্থানে যানজট সমস্যা নিরসন হবে।    কাদের বলেন, আগামী ডিসেম্বরের আগেই মেঘনা ও গোমতি সেতুর ফোরলেন সেতু প্রকল্প বাস্তবায়িত হবে। এ সেতুগুলো চালু হলে তিন ঘণ্টার মধ্যে ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম যাওয়া যাবে। বাসস  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *