বিনোদন

শুভশ্রী-মিমি দ্বন্দ্ব আবারো চরমে!

মিমি-শুভশ্রী দুজনেই টলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী। পরিচালক রাজ চক্রবর্তীর সাথে প্রেমের সম্পর্কে ছিলেন দুজনেই। এখন তিনজনের পথই আলাদা। তারপরেও কোথায় যেন একটা খটকা লেগে আছে। টালিউডে শুভশ্রী ও মির দ্বন্দ্ব নতুন নতুন গল্প জন্ম দিচ্ছে। আর এই নিয়ে শুরু হয়েছে বিবাদ।   সম্প্রতি গণমাধ্যমে শুভশ্রী নিজের ক্ষোভ ঝেড়েছেন মিমির অপর। তবে ঘটনার শুরুটা করেছিলেন মিমি চক্রবর্তী। কিছুদিন আগে তিনি শুভশ্রীকে ‘ক্লাসলেস অশিক্ষিত’ বলে আখ্যায়িত করেছিলেন। এরই জবাবে গণমাধ্যমে শুভশ্রী বলেছেন মিমির এমন কথায় রাগের বদলে তার হাসি পেয়েছে।   শুভশ্রী বলেন, মিমির কথা শুনে মনে হয়েছে সে হতাশায় ভুগছে।   আমার তার জন্য বরং দুঃখই হচ্ছে। হতাশায় না ভুগলে অন্য মানুষ সম্পর্কে এমন কথা কেউ বলতে পারে না। মিমি কেমন শিক্ষা পেয়েছেন, সেটা তো তার কথা থেকেই বোঝা যাচ্ছে।      শুভশ্রী আরো বলেন, আমি এই বিষয় নিয়ে তাকে কোনো খারাপ কথা বলতে চাইছি না। কারণ এই রকম শিক্ষা আমি পাইনি। হ্যাঁ, খুব বেশি পড়াশোনা আমি করেনি, খুবই সাধারণ পরিবারে আমার জন্ম। বর্ধমান থেকে উঠে এসেছি। কিন্তু আমার পরিবার থেকে মানুষকে শ্রদ্ধা এবং সম্মান করতে শেখানো হয়েছে।   সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে শুভশ্রীকে জিজ্ঞেস করা হয়েছিল, মিমির ওই সব আক্রমণাত্মক কথায় তার প্রতিক্রিয়া কি? শুভশ্রী খুব ঠাণ্ডা মাথাতেই উত্তর দেন। বলেন, ‘মিমি বলেছে আমি তাকে ফলো করি। আমাকে সে লুজার বলেছে। এগুলো যখন শুনবো স্বাভাবিক ভাবেই খারাপ লাগবে। আমারও তাই লেগেছে। তবে একটা কথা সবারই জানা আছে- মিমি যখন টেলিভিশন সিরিয়াল করা শুরু করে, তখন আমার সিনেমা (খোকাবাবু) সুপারহিট। ওকে ফলো করা ছাড়াই কীভাবে আমার সিনেমা সুপারহিট হলো? এর পরে করলাম ‘খোকা ৪২০’, সেটাও সুপারহিট। ওকে আমার কিছুটা ভালোই লাগে। তাই টুইট করি। তার মানে এই না যে, কাজের ক্ষেত্রে তাকে আমার ফলো করতে হবে।   তবে কেনো এই দ্বন্দ্ব তা নিয়ে চলছে বেশ গুঞ্জন। কেউ কেউ বলছে টালিউডের জনপ্রিয় নির্মাতা রাজ চক্রবর্তীই এই দ্বন্দ্বের কারণ। তার প্রেমে হাবুডুবু খাচ্ছেন সেখানকার দুই জনপ্রিয় নায়িকা শুভশ্রী গাঙ্গুলী ও মিমি চক্রবর্তী। তবে ঠিক কার সঙ্গে রাজের প্রেম চলছে, এটা এখনো স্পষ্টতা পায়নি। কারণ রাজের সঙ্গে দুই অভিনেত্রীকেই বিভিন্ন সময় ঘনিষ্ঠভাবে দেখা গেছে।   কিছু দিন আগে পর্যন্ত টালিগঞ্জের রটনা ছিলো যে, রাজ-শুভশ্রী বিয়ে করছেন। রাজ নাকি নিজেই সেই খবর নিশ্চিত করেছিলেন। বিয়ের জন্য সব ধরণের প্রস্তুতিও সম্পন্ন করা হয়েছিলো।কিন্তু জল ঘোলা হয়ে যায় কিছু দিন পরেই। শোনা যায়, প্রাক্তন প্রেমিকা মিমির সঙ্গে আবারও মেলামেশা করছেন রাজ। আর পারিবারিক কারণে শুভশ্রীর সঙ্গে বিয়েটাও নাকি বাতিল হয়ে যায়।     এদিকে সম্প্রতি পূজোর ছুটিতে রাজের সঙ্গে মিমি গোয়া ঘুরতে গেছেন, এমন গুঞ্জন ছড়ায়। খবরের শিরোনাম ভরে ওঠে রসালো বাক্যে। কিন্তু এমন খবরে চটে যান মিমি। কারণ তিনি সে সময় কলকাতাতেই ছিলেন। তিনি জানান, কে কার সঙ্গে সম্পর্ক করছে, সেটা নিয়ে আমার মাথাব্যথা নেই। অন্য কোনো নায়িকা কিছু বললেই সেটা ছাপতে হবে? আর বিষয়টা ভীষণই স্পর্শকাতর।   মিমি আরও বলেন, আমি কলকাতায় ছিলাম সেটা অনেকেই জানেন। আর অষ্টমীর রাতে আমার দাদু মারা গেয়েছিল। একজন গোয়ায় গিয়ে বসে থাকবে আর রটিয়ে দেবে আমি সেখানে রয়েছি, এটা হতে পারে না। এদিকে মিমির এমন স্পষ্ট জবাবে গুঞ্জনের পাল্লাটা চলে যায় শুভশ্রীর ওপর। অর্থাৎ রাজের সঙ্গে তিনিই গোয়া গিয়েছিলেন এবং বিতর্ক এড়াতে ইন্ডাস্ট্রিতে রটিয়েছেন মিমির কথা। ফলে রাজের সঙ্গে প্রেম নিয়েও দ্বন্দ্বে জড়িয়ে যান দুই নায়িকা। তবে সমালোচকরা মনে করছেন ক্যারিয়ার, প্রেম, সাফল্য সবকিছু মিলিয়ে তাদের এই দ্বন্দ্ব।  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *