বাংলাদেশ

রোহিঙ্গাদের সহায়তায় ২৬২ কোটি টাকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র

মিয়ানমার রাখাইন রাজ্যে সংঘটিত সহিংসতা এড়াতে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের জরুরী মানবিক সহায়তা প্রদানের জন্য যুক্তরাষ্ট্র অতিরিক্ত প্রায় ৩২ মিলিয়ন ডলার (২৬২.৩ কোটি টাকা) প্রদান করবে। নিউইয়র্কে অনুষ্ঠিত ৭২তম জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে যুক্তরাষ্ট্র এই সহায়তা প্রদানের ঘোষণা দিয়েছে।   মার্কিন দূতাবাস ঢাকা থেকে পাঠানো প্রেস রিলিজে বলা হয়, এই কঠিন মানবিক সঙ্কটে বাংলাদেশের উদারতা  এবং বিপদগ্রস্ত মানুষকে সাহায্য পৌঁছে দিতে চলমান প্রচেষ্টার জন্য দেশটিকে আমরা অভিনন্দন জানাই। স্থানীয় আশ্রয় প্রদানকারী এবং  যারা রাখাইন রাজ্যে অভ্যন্তরীনভাবে উচ্ছেদের স্বীকার হয়েছে তারাও এই সহায়তায় অন্তর্ভুক্ত থাকবে।   নতুন ঘোষিত এই তহবিলের ফলে চলতি ২০১৭ অর্থবছরে মিয়ানমারের অভ্যন্তরে বাস্তুচ্যুত ব্যক্তি ও এই অঞ্চলে দেশটি থেকে আগত শরণার্থীদের জন্য যুক্তরাষ্ট্র প্রদত্ত সহায়তার পরিমাণ দাঁড়াল প্রায় ৯৫ মিলিয়ন ডলারে। এই তহবিল রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর অবর্ণনীয় দুর্দশা মোচনে ও তাঁদের জরুরি মানবিক সহায়তার প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিশ্রুতির প্রতিফলন।     প্রেস রিলিজে বলা হয়, শত শত শরণার্থীর এই স্রোতের ফলে সম্পদের অপ্রতুলতা তৈরি হয়েছে এবং মানবিক সংস্থা ও স্থানীয় প্রশাসনকে হিমশিম খেতে হচ্ছে।  যুক্তরাষ্ট্র এই সমর্থনের মাধ্যমে, জরুরী আশ্রয়স্থান, খাদ্য নিরাপত্তা, পুষ্টি সহায়তা, স্বাস্থ্য সহায়তা, মনস্তাত্ত্বিক সহায়তা, পানি, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা, জীবিকা, সামাজিক অন্তর্ভুক্তি, অন্যান্য সামগ্রিক, দুর্যোগ এবং সংকট হ্রাস, পরিবারের বিচ্ছিন্ন সদস্যদের যোগাযোগ পুনঃস্থাপন এবং মিয়ানমার ও বাংলাদেশে থাকা চার লাখের বেশী বাস্তুচ্যুত মানুষের সুরক্ষা প্রদান করবে।    রাখাইন রাজ্যে কোনো বাধা ছাড়া মানবিক সহায়তা পৌঁছে দেয়ার অনুমতি দিতে মিয়ানমার সরকারের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *