খেলা-ধূলা

মোনাকোর আশা শেষ করে দিল লিপজিগ

ফ্রেঞ্চ লিগ চ্যাম্পিয়ন মোনাকোকে ৪-১ গোলে বিধ্বস্ত করে চ্যাম্পিয়নস লীগের নক আউট পর্বের আশা টিকিয়ে রেখেছে জার্মান ক্লাব আরবি লিপজিগ। তবে এই পরাজয়ে মোনাকোর পরের রাউন্ডে খেলার স্বপ্ন শেষ হয়ে গেছে। ৫ ম্যাচে ১১ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ-জি’র শীর্ষ দল হিসেবে নক আউট পর্ব নিশ্চিত করেছে বেসিকতাস। অন্যদিকে সমান ৭ পয়েন্ট করে সংগ্রহ করে দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে রয়েছে যথাক্রমে পোর্তো ও লিপজিগ। দিনের শুরুতে বেসিকতাসের সাথে পোর্তোর ম্যাচটি গোলশুন্য ড্র হয়। মোনাকো ৫ ম্যাচে সংগ্রহ করেছেন মাত্র দুই পয়েন্ট।   লিপজিগ বস রালফ হাসেনহুয়েটেল বলেছেন, আমরা আজকের ম্যাচের ওপর দারুণ গুরুত্ব দিয়েছিলাম। আজ ছেলেরা অসাধারণ খেলেছে। ঘরের বাইরে আজকে ছিল চ্যাম্পিয়নস লীগে আমাদের সেরা পারফরমেন্স। টিমো ওয়ার্নার আক্রমনভাগে ছিল অপ্রতিরোধ্য।   এদিকে গত বছর ক্লাবকে ফ্রেঞ্চ লিগ শিরোপা এনে দেয়া মোনাকো কোচ লিওনার্দো জারদিম বলেছেন চলতি বছর গ্রুপের ম্যাচগুলোতে ভুলের মাশুল গুনতে হচ্ছে পুরো দলকে। এই ধরনের প্রতিযোগিতার মানের সাথে আমরা খাপ খাওয়াতে পারিনি। ঘরের মাঠে তিনটি পরাজয় ও এ্যাওয়ে ম্যাচে দুটি ড্র, এই ফলাফলে সামনে এগিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়। আগামী মৌসুমে আমাদের আরো শক্তিশালী দল গঠন করতে হবে।   নক আউট পর্বের জন্য সামান্যতম যে সুযোগটুকু ছিল তার জন্য জয় ভিন্ন বিকল্প কিছুই ছিল না মোনাকোর সামনে। কিন্তু ম্যাচ শুরুর ৬ মিনিটেই ডিফেন্ডার জেমারসনের আত্মঘাতি গোলে লিপজিগ এগিয়ে গেলে ম্যাচের ভাগ্য অনেকটাই অনুমেয় হয়ে পড়ে। তিন মিনিট পরে জেমারসনের দূর্বল পাস থেকে টিমো ওয়ার্নার বল ছিনিয়ে নিয়ে সহজ গোলের ব্যবধান দ্বিগুণ করেন। মোনাকোর হয়ে রাদামেল ফ্যালকাও পোস্টের খুব কাছ থেকেও গোল করতে ব্যর্থ হলে স্বাগতিকদের ম্যাচে ফিরে আসা সম্ভব হয়নি। ৩১ মিনিটে স্পট কিক থেকে ওয়ার্নার নিজের দ্বিতীয় গোল করেন। বিরতির দুই মিনিট আগে রনি লোপেসের ফ্রি-কিক থেকে অবশ্য ফ্যালকাও স্বাগতিকদের আর হতাশ করেননি। ৪৫ মিনিটে নেবি কেইটা লিপজিগের হয়ে চতুর্থ গোলটি করলে মোনাকোর ইউরোপীয়ান স্বপ্ন শেষ হয়ে যায়।  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *