প্রবাস

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিসহ ৫০০ বিদেশি কর্মী আটক

মালয়েশিয়ায় সাধারণ ক্ষমার মেয়াদ শেষ হওয়ার পর নতুন করে শুরু হওয়া অভিযানে বৈধ কাগজপত্র না থাকায় পাঁচশ’র বেশি বিদেশি কর্মীকে আটক করেছে দেশটির অভিবাসন কর্তৃপক্ষ। শুক্রবার মধ্যরাত থেকে শুরু হওয়া অভিযানে আটক বিদেশিদের মধ্যে অর্ধেকের মতো বাংলাদেশি রয়েছেন বলে মালয়েশিয়ার গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে। নতুন করে ধড়পাকড়ে সেখানে কাগজপত্রহীন অবস্থায় থাকা বাংলাদেশিরা চরম ভীতিতে রয়েছেন বলে জানা গেছে।   বৃহস্পতিবার মালয়েশিয়ায় ৩+১ কর্মসূচির আওতায় সাধারণ ক্ষমার মেয়াদ শেষ হয়। এর পর অপারেশন মেগা ৩.০ শুরু করেছে অভিবাসন বিভাগ। প্রথম দুই দিনে কমপক্ষে ৪ হাজার বিদেশি কর্মীর কাগজপত্র পরীক্ষা করেছে তারা। অভিবাসন বিভাগের মহাপরিচালক মুস্তাফার আলী বলেছেন, সারাদেশে বিভিন্ন স্থানে ঘেরাও করে এ অভিযান চলছে। পাঁচশোর বেশি লোককে আটক করা হয়েছে।   ৩+১ সাধারণ ক্ষমার অধীনে একজন অবৈধ কর্মী ৩০০ রিংগিত জরিমানা ও বিশেষ পাসের জন্য ১০০ রিংগিত দিয়ে নিজ নিজ দেশে ফিরতে পারতেন। ২০১৪ থেকে গত ২৮ আগস্ট পর্যন্ত ৮ লাখেরও বেশি অবৈধ অভিবাসী সাধারণ ক্ষমার সুযোগ নিয়েছেন এবং তারা তাদের নিজেদের দেশে ফিরে গেছেন।   মুস্তাফার আলী বলেন, এ বছর ১ জানুয়ারি থেকে ৩০ আগস্টের মধ্যে অভিবাসন বিভাগ ৯৭১৫টি অপারেশন চালিয়েছে। ওই সময়ে আটক করা হয়েছে ২৯ হাজারেরও বেশি অবৈধ কর্মীকে এবং ৮৮০ জন চাকরিদাতাকে। মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ, মিয়ানমার, পাকিস্তান, কম্বোডিয়া, চীন, ভিয়েতনাম, ভারত ও নেপালের কর্মীরা কাজ করেন। দেশটিতে অবস্থানরত প্রায় ৫ লাখ বাংলাদেশির বৈধ কাগজপত্র নেই বলে জানা গেছে।  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *