বাংলাদেশ

‘মাদকবিরোধী অভিযান পরিচালনায় ভারত-মিয়ানমার সীমান্তে লিয়াঁজো অফিস’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল সংসদকে জানিয়েছেন, মাদকবিরোধী অভিযান কার্যক্রম তাৎক্ষণিকভাবে সুচারুভাবে পরিচালনা করার জন্য পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত ও মিয়ানমার সীমান্ত এলাকায় সংশ্লিষ্ট দু’দেশের সহযোগিতায় সীমান্ত (বর্ডার) লিয়াঁজো অফিস স্থাপনের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।    মঙ্গলবার সংসদে টেবিলে উপস্থাপিত প্রশ্নোত্তরে নেত্রকোণা-৫ আসনের সরকার দলীয় এমপি ওয়ারেসাত হোসেন বেলালের এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী একথা জানান।   স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, মাদক সমস্যা নিরসনের লক্ষ্যে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে এ পর্যন্ত বিভিন্ন পর্যায়ে (মহাপরিচারক, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর ও মহাপরিচালক, নারকোটিক্স কনট্রোল ব্যুরো) দ্বিপাক্ষিক পাঁচটি সফল বৈঠক সম্পন্ন হয়েছে। আর ইয়াবা পাচার ঠেকাতে অপর পার্শ্ববর্তী দেশ মিয়ানমারের সঙ্গেও এখন পর্যন্ত ৩টি দ্বিপাক্ষিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। মিয়ানমার ও ভারতে অবস্থিত মাদক ব্যবসায়ীদের এবং মাদক তৈরির গোপন কারখানার তালিকা উভয় দেশের প্রতিনিধিদের কাছে দিয়ে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে প্রতিটি বৈঠকে। মিয়ানমারকে ইয়াবার উৎপাদন ও প্রবাহ বন্ধ করার জন্য এবং মিয়ানমার সীমান্তে অবস্থিত ইয়াবা তৈরির কারখানা সম্পর্কে গোয়েন্দা তথ্য বিনিময় করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধ করা হয়েছে।  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *