ফিচার্ড পোস্ট

বেগম জিয়াকে মিথ্যা মামলায় কারাবন্দি করা হয়েছে: রিজভী


বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাড. রুহুল কবির রিজভী অভিযোগ করে বলেছেন, দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে নির্বাচন থেকে দূরে রাখতে যতো অপকৌশলই সরকার করুক না কেন আগামী জাতীয় নির্বাচনে বেগম খালেদা জিয়াকে দূরে সরিয়ে রাখা যাবে না। বেগম খালেদা জিয়াবিহীন নির্বাচন দেশে-বিদেশে গ্রহণযোগ্যতা পাবে না এবং দেশের জনগণ তা মেনেও নেবে না। বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় কার্যালয় নয়াপল্টনে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ সব কথা বলেন।   নির্বাচন থেকে মাইনাস করার উদ্দেশ্যেই সরকার নীলনকশা এঁটে বেগম জিয়াকে রাজনৈতিক মিথ্যা মামলায় কারাবন্দি করেছে বলেও দাবি করে রিজভী বলেন, ‘এটি এখন জনগণের কাছে পরিষ্কার হয়ে গেছে।  ‘রাজনৈতিক দমনমূলক হামলা-মামলায় জাতীয়তাবাদী শক্তিকে রুদ্ধ করা যাবে না। খালেদা জিয়াকে বন্দি করার পর দেশবাসী জেগে উঠেছে। সব বাধা-বিপত্তি উপেক্ষা করে বেগম জিয়ার মুক্তির দাবিতে লাখো মানুষ রাজপথে নেমে এসেছে। সারাদেশব্যাপী নিন্দার ঝড় বইছে। এতেই সরকারের ভীত নড়বড়ে হয়ে উঠেছে।    তিনি বলেন, গণতন্ত্রশূন্যতার কারণেই ক্ষমতার ভারসাম্য বলে কিছু নেই। একজনের ক্ষমতাই সর্বব্যাপী। আইন, বিচার, আদালত ‘সর্বত্রই সরকারের ছায়াশাসনের আওতাভুক্ত’। আওয়ামী সরকার বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোকে দমন করার জন্যই একের পর এক সাজানো মামলায় একনায়কতন্ত্র কায়েম করতে চাচ্ছে।   সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবুল খায়ের ভূইয়া, বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সহ-দফতর সম্পাদক মুনির হোসেন, তাইফুল ইসলাম টিপু ও বেলাল হোসেন প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *