বাংলাদেশ

‘‘বিপিও’ খাতে বাংলাদেশের আয় প্রবৃদ্ধি একশত ভাগেরও বেশি’

বিজনেস প্রসেস আউটসোর্সিং (বিপিও) খাতে বাংলাদেশের আয় প্রবৃদ্ধি একশ’ ভাগেরও বেশি উল্লেখ করে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেছেন, ২০২১ সাল নাগাদ আইসিটি খাত থেকে ৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে সরকার কাজ করছে।    তিনি বলেন, ‘এখন আমরা আইসিটিখাত থেকে বছরে ১৮০ মিলিয়ন ডলার আয় করি। ২০২১ সাল নাগাদ এখাত থেকে ৫ বিলিয়ন ডলার আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে আমরা কাজ করছি। বিপিও শিল্পকে তরুণ প্রজন্মের কাছে জনপ্রিয় ও পরিচয় করিয়ে দিতে পারলে শুধু ৫ বিলিয়ন নয়, এখাতে আমাদের আয় দ্বিগুণ কিংবা তিনগুণ করার সুযোগ রয়েছে’।   বিপিও সামিট বাংলাদেশ-২০১৮ উপলক্ষে সোমবার বিকেলে সোনারগাঁও হোটেলে আয়োজিত ‘চতুর্থ শিল্প বিপ্লব : বিজনেস প্রসেস আউটসোর্সিং এর চ্যালেঞ্জ’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তর এবং বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব কল সেন্টার অ্যান্ড আউটসোর্সিং (বাক্য) এই সেমিনারের আয়োজন করে।    দ্য বস্টন কনসাল্টিং গ্রুপ-এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর জারিফ মুনিরের সঞ্চালনায় এ অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিসিজি’র প্রিন্সিপাল নিতিন চান্দালিয়া। আরও বক্তব্য রাখেন আইসিটি বিভাগের যুগ্ম-সচিব মো. মহসিন-উল-হক। আইসিটি ও বিপিও খাতের কয়েকজন উদ্যোক্তারা সেমিনারে তাদের ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা তুলে ধরেন।    বিশ্বের ক্রমবর্ধমান শিল্পগুলোর মধ্যে ‘বিপিও’ খাত অন্যতম উল্লেখ করে শিল্পমন্ত্রী বলেন, এখাতে বর্তমানে ৫০০ বিলিয়ন ডলারের বাজার রয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। এটি বাংলাদেশের উদীয়মান অর্থনীতির জন্য একটি নতুন সম্ভাবনা এনে দিয়েছে।   

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *