রাজনীতি

বিএনপির চক্রান্তে গাজীপুরে ভোট স্থগিত : নানক

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচন স্থগিতে বিএনপির ইন্ধন রয়েছে।    সোমবার দুপুরে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ের একটি হোটেলে বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট-বিএনএফ এর জাতীয় সম্মেলনে তিনি আরো বলেন, ‘এই নির্বাচন বন্ধের জন্য ব্যরিস্টার মওদুদ আহমদ গত ১০ এপ্রিল চেষ্টা করেছেন। একজন চেয়ারম্যনের পক্ষে তিনি শুনানি করে ব্যর্থ হন।’    আগামী ১৫ মের ভোটকে সামনে রেখে গাজীপুরে যখন জমজমাট প্রচার চলছে, তখন ৬ মে সাভারের শিমুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা এ বি এম আজহারুল ইসলাম সুরুজের আবেদনে ভোট তিন মাসের জন্য স্থগিত হয়ে যায়। সুরুজ জানান, তার ইউনিয়নরে ছয়টি মৌজা গাজীপুর সিটি করপোরেশনের আওতাভুক্ত হয় ২০১৩ সালের ডিসেম্বরে। সেই সময় থেকেই তিনি আইনি লড়াইয়ে আছেন। কেবল গাজীপুরে নয়, তিনি তার ইউনিয়নের ছয় মৌজায় ভোট স্থগিত চেয়েছিলেন। ৬ মে যার রিট আবেদনে গাজীপুরে নির্বাচন স্থগিত হয়েছে সেই সুরুজ গত ১০ এপ্রিল আরও একটি রিট করেন। সে সময় তার আইনজীবী ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ। তবে সেই আবেদনটি উত্থাপিত হয়নি মর্মে খারিজ হয়ে যায়। আর সুরুজের পক্ষে মওদুদ আহমদের আদালতে যাওয়াকেই এই নির্বাচন স্থগিতে বিএনপির ‘চক্রান্ত’ বলে দাবি করছেন নানক।    তিনি বলেন, ‘গাজীপুরে বিএনপির মেয়রের কাছে ওই এলাকার মানুষ সেবা পায় নাই বলে গাজীপুরের জনগণ বিএনপি থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। নির্বাচনে নিশ্চিত ভরাডুবির আভাস পেয়ে ভোটে জিততে সারা দেশ থেকে সন্ত্রাসীদের জড়ো করছিল বিএনপি। নির্বাচন ভণ্ডুলের ষড়যন্ত্রে তারা আগে থেকেই ছিল। এই নির্বাচন বন্ধে সরকারের কোন হাত নেই জানিয়ে নানক বলেন, ‘আদালত রায় দিয়ে নির্বাচন স্থগিত করেছে।’    বিএনএফের সম্মেলনে দলের সভাপতি এস এম আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে সারা দেশ থেকে নেতাকর্মীরা যোগ দেন। বেলা ১১টায় উদ্বোধনী অধিবেশনের মাধ্যমে সম্মেলন শুরু হয়।  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *