ফিচার্ড পোস্ট রাজনীতি

বাংলার মা খালেদা জিয়া গণতন্ত্রের জন্য তার সমস্ত জীবনকে উৎসর্গ করেছেন : পাভেল মিঞা

ক্ষমতা হারানোর ভয়ে খালেদা জিয়াকে কারাবন্দি করে রেখেছে সরকার বলে  উল্লেখ করেন  পাভেল মিঞা।নির্বাহী সদস্য নিউ ইয়র্ক সিটি বিএনপির এই নেতা।তিনি আরো বলেন তারা চায় খালেদা জিয়াকে কারাগারে রেখে আবারও একটি ষড়যন্ত্রমূলক একদলীয় নির্বাচন করে ক্ষমতা ধরে রাখতে। খালেদা জিয়া বাইরে থাকলে আওয়ামী লীগ নির্বাচনে বিজয়ী হতে পারবে না। আর সে জন্যই নিজেদের একদলীয় শাসনকে দীর্ঘায়িত করতেই মিথ্যা, সাজানো ও জাল-জালিয়াতি করে তৈরি করা মামলায় তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ঢাকা দক্ষিণের শ্যামপুর থানার সাবেক এই ছাত্রনেতা বলেন  ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি দেশের কোনো মানুষ ভোট দিতে যায়নি। আওয়ামী লীগ অবৈধভাবে বিনা ভোটে ক্ষমতা দখল করেছে। এরপর দেশের সব প্রতিষ্ঠানকে নিজেদের করায়ত্ত করেছে। দেশের মানুষের শেষ আশ্রয়স্থল বিচারালয়কেও এ সরকার নিজেদের করায়ত্ত করে রেখেছে। প্রধান বিচারপতিকেও অন্যায়ভাবে দেশ ছাড়তে বাধ্য করেছে।

গর্জেউঠা বিএনপির প্রতিবাদী এই নেতা আরো বলেন বাংলার কোটি কোটি  মানুষ এখনো ধৈর্য্য ধারণ আছেন দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেলে মুহূর্তেই লণ্ডভণ্ড করে দিবে এই অবৈধ সরকারের আস্তানা। এখনো সময় আছে হাসিনা মেডাম আপনার পুরোটিম নিয়ে বৈধ রাজনীতিতে আসুন এবং একটি বৈধ সরকার গঠন করুন। আর এজন্য দরকার একটি নিরপেক্ষ তত্তাবধায়ক সরকার।

পাভেল মিঞা বলেন,যে নেত্রী গণতন্ত্রের জন্য তার সমস্ত জীবনকে উৎসর্গ করেছেন।তিনি গণতন্ত্রকে প্রতিষ্ঠার জন্য সারা জীবন লড়াই সংগ্রাম করেছেন রাজপথে চারণ কবির মতো ঘুরে বেড়িয়েছেন সেই নেত্রীকে আজকে এই অনির্বাচিত অবৈধ ফ্যাসিস্ট সরকার তাদের ক্ষমতাকে চিরস্থায়ী করার লক্ষ্যে একদলীয় শাসন ব্যবস্থাকে বাস্তবায়িত করার লক্ষ্যে সেই গণতন্ত্রের নেত্রীকে সম্পূর্ণ মিথ্যা মামলায় কারারুদ্ধ করেছে। আসুন দেশনেত্রীর মুক্তির দাবিতে আমরা সোচ্চার হই। আন্দোলনের মধ্য দিয়েই আমরা বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে আনবো ইনশাআল্লাহ। আজকে আমার মা-বোনেরা জেগেছেন তাদেরকে আমি অনুরোধ জানাবো আপনাদের সবাইকে নিয়ে রাস্তায় নামতে হবে। দেশকে উদ্ধার করতে হবে, দেশনেত্রীকে উদ্ধার করতে হবে। কারণ এখন দেশ এবং খালেদা জিয়া এই দুটো যেমন একাকার হয়ে গেছেন তেমনিভাবে গণতন্ত্র এবং খালেদা জিয়াও একাকার হয়ে গেছেন। তাই খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে আমাদের সমস্ত শক্তি দিয়ে, জনগণের শক্তি দিয়ে।ওরা কতজনকে গ্রেফতার করবে কতজন গুমকরবে আমরাও দেখতে চাই।

পাভেল আরো বলেন প্রতিটি দেশপ্রেমিক মানুষের দায়িত্ব সকল গণতান্ত্রি কামী মানুষদের ঐক্যবদ্ধ করে তুলতে।ঐক্যবদ্ধ হয়ে এই ফ্যাসিস্ট সরকার যারা আজকে বাংলাদেশের মানুষের বুকে জবরদখল করে পাথরের মতো চেপে বসে আছে তাদেরকে অপসারণ করতে হবে। দেশে গণতন্ত্রের মুক্ত বাতাস বইতে হবে। একটি সুষ্ঠু অবাধ নির্বাচনের মধ্য দিয়ে দেশে গণতন্ত্রকে পুনঃপ্রতিষ্ঠা করতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *