ফিচার্ড পোস্ট

বাংলাদেশে অবাধ-সুষ্ঠু নির্বাচন চায় জাতিসংঘ


বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া দণ্ডিত হয়ে জেলে যাওয়ার পর বাংলাদেশের পরিস্থিতির ওপর ঘনিষ্ঠ নজর রাখছে জাতিসংঘ। একইসঙ্গে একটি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন আশা করছে সংস্থাটি। এজন্য যথাযথ পরিবেশ সৃষ্টি জরুরি বলে জানানো জানিয়েছে। শুক্রবার নিয়মিত প্রেস ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্টোনিও গুতেরেসের মুখপাত্র স্টিফেন ডুজাররিক এ কথা বলেন। একইসঙ্গে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়েও কথা বলেন তিনি।   মুখপাত্র ডুজাররিকের কাছে প্রশ্ন করা হয়, বাংলাদেশের প্রধান বিরোধীদলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া এখন জেলে। শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ বিক্ষোভের মাধ্যমে লাখ লাখ মানুষ তার মুক্তি দাবি করছেন। গণমাধ্যমের খবরে আরো বলা হয়েছে, আগামী নির্বাচনে অযোগ্য করতেই খালেদা জিয়াকে জেলে পাঠানো হয়েছে। রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মামলায় কারাদণ্ডপ্রাপ্ত খালেদা জিয়া মুক্তির বিষয়ে জাতিসংঘ মহাসচিব কি পদক্ষেপ নিয়েছেন? জবাবে তিনি বলেন, আমরা বলেছি পরিস্থিতির দিকে ঘনিষ্ঠভাবে নজর রাখছি। আমরা উদ্বেগ প্রকাশ করেছি। একটি অবাধ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন যাতে হয় এজন্য পরিবেশ সৃষ্টি করতে হবে। এটাই আমাদের চাওয়া।    অন্যদিকে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের উপযোগী পরিবেশ সৃষ্টি হয়নি বলে জানিয়েছেন তিনি। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের নিজ বাড়িতে ফিরতে দিতে হবে।  অবশ্যই তাদেরকে কোনো আশ্রয় শিবির বা ক্যাম্পে রাখা চলবে না। এছাড়া আরও অনেক শর্তই এখনও পূরণ হয়নি।    তিনি বলেন, প্রত্যাবর্তন হতে হবে স্বেচ্ছায়। পরিস্থিতি সম্পর্কে  রোহিঙ্গাদের অবহিত থাকার বিষয়ে সম্মান দেখাতে হবে। তারা কোথায় ফিরে যেতে চায় সেটা তাদেরকে বেছে নিতে দিতে হবে। এক্ষেত্রে কোনো বল প্রয়োগ করা উচিত নয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *