খেলা-ধূলা

চারদিনের টেস্টের নিয়ম-কানুন প্রকাশ করেছে আইসিসি

আগামী ২৬ ডিসেম্বর পোর্ট এলিজাবেথে শুরু হবে দক্ষিণ আফ্রিকা-জিম্বাবুয়ের মধ্যকার ইতিহাসের প্রথম চারদিনের টেস্ট ম্যাচ। পাঁচ দিনের টেস্টে নিয়মানুযায়ী ৯০ ওভার খেলা হয়ে থাকে। তবে দক্ষিণ আফ্রিকা-জিম্বাবুয়ের মধ্যকার চারদিনের টেস্টের প্রতিদিন ৯৮ ওভার করে খেলা হবে। দক্ষিণ আফ্রিকা ও জিম্বাবুয়ের চারদিনের এই টেস্টটি হবে দিবা-রাত্রির। তাই এ ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে গোলাপি বলে। ইতিহাসের প্রথম চারদিনের টেস্ট ম্যাচের নিয়ন-কানুন আজ ঘোষণা করে ক্রিকেটের প্রধান সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)।    আইসিসির প্লেয়িং কন্ডিশন অনুযায়ী, চারদিনের টেস্টে প্রতিদিন খেলা হবে ৯৮ ওভার। সাধারণত পাঁচদিনের টেস্টে ৯০ ওভার খেলা হয়ে থাকে। তাই চারদিনের টেস্টে প্রতি দিন ৮ ওভার করে বেশি খেলা হবে। তবে পাঁচদিনের টেস্টের তুলনায় চারদিনে কম ওভার খেলা হবে। পাঁচদিনে যেখানে হয় ৪৫০ ওভার। সেখানে প্রতিদিন ৯৮ করে হলেও চারদিনে মোট খেলা হবে ৩৯২ ওভার। পাঁচদিনের টেস্টের চেয়ে ৫৮ ওভার কম খেলা হবে চারদিনের ম্যাচে।   চারদিনের টেস্টে প্রতিদিন ৮ ওভার বেশি খেলা হওয়ায়, প্রতিদিন ৩০ মিনিট করে বেশি খেলা হবে। পাঁচদিনের টেস্টে প্রতিদিন খেলা হয় ৬ ঘন্টা। আর চারদিনের টেস্টে প্রতিদিন খেলা হবে সাড়ে ৬ ঘন্টা।  এ ছাড়া পাঁচদিনের টেস্টে ফলো-অনের জন্য রান থাকে ২০০। তবে চারদিনের টেস্টে ৫০ রান কমে সেটি হচ্ছে ১৫০এ। অর্থাৎ ১৫০ রানেই প্রতিপক্ষকে ফলো-অন করানো যাবে।   দক্ষিণ আফ্রিকা-জিম্বাবুয়ে চারদিনের টেস্টটি শুরু হবে স্থানীয় সময় দুপুর দেড়টায়। প্রথম সেশন হবে ৩টা ৪৫ মিনিটে। এরপর চা-বিরতির জন্য ২০ মিনিট বিরতি থাকবে। দ্বিতীয় সেশন আবার শুরু হবে বিকেল ৪টা ০৫ মিনিটে। এই সেশন শেষ হবে ৬টা ২০ মিনিটে। এরপর ডিনারের জন্য ৪০ মিনিট বিরতি দিয়ে আবারো মাঠে গড়াবে ব্যাট-বলের লড়াই। সন্ধ্যা ৭টায় দিনের তৃতীয় ও শেষ সেশন শুরু হয়ে চলবে রাত ৯টা পর্যন্ত।   

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *