বাংলাদেশ

কৃষকদের পুনর্বাসনে ১৩৭ কোটি টাকা দেয়া হবে : কৃষিমন্ত্রী

কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বলেছেন, উত্তর, মধ্য ও হাওর অঞ্চলে কৃষকদের পুনর্বাসনে ১৩৭ কোটি টাকা দেয়া হবে। তিনি বলেন, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত দেশের ২৪টি জেলার কৃষকদের মধ্যে সরকার ১৩৬ কোটি ৯৯ লাখ ৯৯ হাজার ৫শত ৫১ টাকার সার, বীজ ও নগদ সহায়তা বিতরণ করা হবে।    আজ মঙ্গলবার কৃষি মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।    মতিয়া চৌধুরী জানান, সরকার বর্তমান অর্থবছরে ইতোমধ্যে ৬৪ জেলায় ৫ লাখ ৪১ হাজার ২ শত ১ জন ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষককে ১০টি ফসলের আবাদ বৃদ্ধির জন্য বীজ, ডিএপি ও এমওপি সার সহায়তা প্রদানের লক্ষ্যে ৫৮ কোটি ৭৫ লাখ ৭৯ হাজার ৩ শত ৮৫ টাকার প্রণোদনা প্রদান করেছে।   তিনি বলেন, কৃষি প্রণোদনা কার্যক্রমের পাশাপাশি কৃষি মন্ত্রণালয় পাহাড়ি ঢল ও আকস্মিক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হাওরভুক্ত সিলেট, সুনামগঞ্জ, হবিগঞ্জ, মৌলভীবাজার, নেত্রকোনা ও কিশোরগঞ্জ এ ৬টি জেলায় চলতি পুনর্বাসন কার্যক্রমের আওতায় বোরো/২০১৭-১৮ মৌসুমে বিনামূল্যে বোরো ধানের বীজ, ডিএপি ও এমওপি সার এবং নগদ সহায়তা বাবদ ৬ লাখ ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষককে ১ শত ১৭ কোটি টাকার বীজ, ডিএপি ও এমওপি সার এবং নগদ ১ হাজার টাকা করে প্রদান করা হচ্ছে।    কৃষিমন্ত্রী বলেন, দেশের উত্তর ও মধ্যাঞ্চলে চলতি বছর বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ১৮টি জেলার ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের ক্ষতি পুষিয়ে নেওয়ার লক্ষ্যে ১ লাখ ৭৬ হাজার ২ শত ২ জন কৃষককে রবি/২০১৭-১৮ মৌসুমে ১৯ কোটি ৯৯ লাখ ৯৯ হাজার ৫ শত ৫১ টাকায় গম, ভূট্টা, সরিষা, চিনাবাদাম, খেসারি, বোরো ধান চাষে বিনা মূল্যে বীজ, ডিএপি ও এমওপি সার এবং শাকসব্জীর বীজ সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে।    মতিয়া চৌধুরী বলন, সরকার বোরো ২০১৭-১৮ এবং রবি ২০১৭-১৮ মৌসুমে ৭ লাখ ৭৬ হাজার ২ শত ২ জন কৃষককে পুনর্বাসন বাবদ ১৩৬ কোটি ৯৯ লাখ ৯৯ হাজার ৫ শত ৫১ টাকার সার ও বীজ প্রদান করছে। বাসস।  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *