ফিচার্ড পোস্ট

কী স্বৈরাচারী করেছি খুঁজে পাই না: এরশাদ


জাতীয় পার্টি (জাপা) চেয়ারম্যান ও সাবেক প্রেসিডেন্ট এইচএম এরশাদ বলছেন, ‘অনেকে আমাকে স্বৈরাচার বলেন, কিন্তু কী স্বৈরাচারী করেছি আমি খুঁজে পাই না। এমন কী করেছি যে আমাকে স্বৈরাচার বলা হয়? আমি কখনোই স্বৈরাচার ছিলাম না। কেউ যদি আমাকে স্বৈরাচার বলে দাবি করেন তাহলে প্রমাণ হাজির করুক।’    শনিবার জাপা চেয়ারম্যান তার বনানী কার্যালয়ে এক যোগদান ও ‘জাতীয় পেশাজীবী সমাজ’- এর আত্মপ্রকাশ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।   এরশাদ বলেন, আওয়ামী লীগের কাছে বিএনপি নিরাপদ নয়, বিএনপির কাছে আওয়ামী লীগ নিরাপদ নয়। মানুষ শান্তিতে থাকতে চায়, নিরাপদে থাকতে চায়। আমি বলতে চাই, আমার কাছে সবাই নিরাপদ। তিনি বলেন, আগামী নির্বাচনের জন্য জাপার ৩০০ প্রার্থী চূড়ান্ত করা হচ্ছে।   নিজে রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করেননি দাবি করে তিনি বলেন, রাষ্ট্রের দায়িত্ব নেয়ার কোনো ইচ্ছা আমার ছিল না। জাস্টিস সাত্তারের অনুরোধে দায়িত্ব নিয়েছিলাম, তিনি তখন দেশ চালাতে অপারগ ছিলেন। আমি নির্বাচন দিয়ে ব্যারাকে ফিরে যেতে চেয়েছিলাম। কেউ নির্বাচনে আসেনি, আমাকে বাধ্য হয়ে দল গঠন করতে হয়েছে। এরশাদ বলেন, ইংরেজি সাইনবোর্ডের নিচে বাংলা চালু করা আমিই প্রথম শুরু করি। আমিই এর অগ্রদূত। আমি ক্যালেন্ডারে ইংরেজির নিচে বাংলা চালু করাও বাধ্যতামূলক করেছিলাম।   অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- জাপার কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যাপক দেলোয়ার হোসেন খান, সুনীল শুভরায়, মেজর (অব.) খালেদ আখতার প্রমুখ। অনুষ্ঠানে ডা. ফাহিম আল ফয়সাল ও ডা. জাফর মিয়ার নেতৃত্বে ৫৬ জন পেশাজীবী জাপায় যোগ দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *