ফিচার্ড পোস্ট

একই ব্যক্তি দুই মেয়াদের বেশি প্রধানমন্ত্রী নয়

রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক দলের সদস্যপদ ত্যাগের এবং একই ব্যক্তির দুই মেয়াদের বেশি প্রধানমন্ত্রী হতে না পারার বিধান যুক্ত করতে সংবিধান সংশোধনের প্রস্তাব দিয়েছেন গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন। এছাড়া রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর ক্ষমতার ভারসাম্য ও বিচার বিভাগের স্বাধীনতা আনয়ন এবং নির্বাহী বিভাগের প্রভাবমুক্ত সকল রাষ্ট্রীয় ও সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানমূহের স্বচ্ছতা-জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে বর্তমান সংবিধানের সময়োপযোগী সংশোধনের জন্য একটি কমিশন গঠনের প্রস্তাবও দেন তিনি। এসব বিষয়সহ সাত দফা প্রস্তাব বাস্তবায়নে দলমত নির্বিশেষে তিনি জনগণের জাতীয় ঐক্যের ডাক দিয়েছেন। গতকাল  জাতীয় প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত গণফোরামের বর্ধিত সভায় সর্বসম্মতিক্রমে এসব প্রস্তাবনা গৃহীত হয়েছে। সভায় সভাপতিত্ব করেন ড. কামাল হোসেন। বর্ধিত সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে ড. কামাল বলেন, এক ব্যক্তির দুই মেয়াদের বেশি প্রধানমন্ত্রী হতে না পারার বিধান উপ-মহাদেশের বহু দেশেই রয়েছে। বিএনপির সঙ্গে জোটে যাবেন কি-না, এমন এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘এই মুহূর্তে আমরা জোট নিয়ে শুরু করছি না। জনগণকে নিয়ে শুরু করতে চাই। কার সঙ্গে জোটে যাব কি যাব না তা নির্বাচন আসলে দেখা যাবে। জনগণের জোটের লক্ষ্য একটাই- দেশে সুশাসন প্রতিষ্ঠা করা। এজন্য দরকার সুস্থ রাজনীতি, রুগ্ন রাজনীতির ফল হলো সন্ত্রাস। এই লক্ষ্যে দলীয় রাজনীতিরও সংস্কার প্রয়োজন। সংবাদ সম্মেলনে গণফোরামের কার্যকরী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসীন মন্টুসহ কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *