বাংলাদেশ

‘আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ ও গণবিচার আন্দোলন’ রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়াবে : নৌপরিবহন মন্ত্রী

নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান বলেছেন, শ্রমিক কর্মচারী পেশাজীবী মুক্তিযোদ্ধা সমন্বয় পরিষদ এবং আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ গণবিচার আন্দোলন শতাধিক ট্রাক ভর্তি ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে টেকনাফে আশ্রয় গ্রহণকারী রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়াবে।   সংগঠন দুইটির পক্ষে উভয় সংগঠনের আহ্বায়ক নৌপরিবহন মন্ত্রী মঙ্গলবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি ভবনের স্বাধীনতা হলে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান।   জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭২তম অধিবেশনে ‘২৫ মার্চকে আন্তর্জাতিক গণহত্যা দিবস’ পালনের জোরালো দাবি এবং রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে পাঁচ দফা পরিকল্পনা তুলে ধরায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আন্তরিক অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জানায় শ্রমিক কর্মচারী পেশাজীবী মুক্তিযোদ্ধা সমন্বয় পরিষদ এবং আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ গণবিচার আন্দোলন।   নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান বলেন, ‘মিয়ানমার সরকার রোহিঙ্গাদের জাতিগতভাবে নির্মূল করার লক্ষ্য নিয়ে গণহত্যা, ধর্ষণ, অগ্নিসংযোগ ও লুটতরাজ চালাচ্ছে। জীবন ও সম্ভ্রম বাঁচানোর জন্য ইতোমধ্যে পাঁচ লক্ষাধিক রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাদের আশ্রয় দিয়ে ‘মাদার অব হিউমিনিটি’ আখ্যায়িত হয়েছেন। রোহিঙ্গা সংকটের স্থায়ী সমাধানের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে পাঁচ দফা পরিকল্পনা তুলে ধরেছেন’। বাসস।  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *