বাণিজ্য

অতিরিক্ত এক হাজার ডলার নিতে পারবেন হজযাত্রী

  সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় এবারে (১৪৩৯ হিজরি সন) হজ পালনের সার্বিক ব্যয়ের প্যাকেজ ঘোষণা করেছে সরকার। ধর্মমন্ত্রণালয় নির্ধারিত সব ধরনের খরচের অতিরিক্ত এবারও একজন হজযাত্রী এক হাজার ডলার সঙ্গে নিতে পারবেন। হিজরি ১৪৩৫ সনে যা ৫শ’ ডলার ছিলো। গতকাল এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করে ব্যাংকগুলোতে পাঠিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।   দেশে কার্যত ব্যাংকগুলোর ব্যবস্থাপনা পরিচালক/প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট পাঠানো ওই প্রজ্ঞাপনে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ গমনেচ্ছুদের কাছ থেকে হজ্জের প্যাকেজ অনুযায়ী স্থানীয় মুদ্রায় অর্থ জমা গ্রহণের বিপরীতে বৈদেশিক মুদ্রা ইস্যুসহ প্রাসঙ্গিক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য অনুমোদিত ডিলারদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। প্রজ্ঞাপনে প্রতি মার্কিন ডলার ৮৩ এবং সৌদি রিয়েল ২২ টাকা ৩৫ পয়সা নির্ধারণ করা হয়েছে। তবে বৈদেশিক মুদ্রার বিনিময় হার সমসাময়িক বাজার দর অনুযায়ী হবে।   বরাবরের মত এবারও সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ পালনে দুটি প্যাকেজ রয়েছে। প্যাকেজ-১ অনুযায়ী, জনপ্রতি হজের খরচ ধরা হয়েছে তিন লাখ ৯৭ হাজার ৯২৯ টাকা। প্যাকেজ-২ অনুযায়ী খরচ ধরা হয়েছে তিন লাখ ৩১ হাজার ৩৫৯ টাকা।   অপরদিকে, বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজের খরচ ধরা হয়েছে জনপ্রতি এক লাখ ৬৮ হাজার ২৭৭ টাকা। তবে এজেন্সি প্যাকেজ অনুযায়ী মিনা-আরাফায় মোয়ালে­মের অতিরিক্ত সার্ভিস চার্জ, মক্কা-মদিনায় বাড়ি/হোটেল ভাড়া ব্যয়, কুরবানির খরচ, গাইড খরচ, খাওয়া খরচ এর সঙ্গে যোগ হবে। প্রত্যেক হজযাত্রীর কুরবানির জন্য ৫০০ রিয়াল সমপরিমাণ ১১ হাজার ১৭৫টাকা সঙ্গে নিতে হবে।   প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, সরকারি বেসরকারি উভয় ব্যবস্থায় হজযাত্রীদের নিজ উদ্যোগে মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট (এমআরপি) সংগ্রহ করতে হবে। যার মেয়াদ ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ সাল পর্যন্ত থাকতে হবে। এ বছর সরকারি ব্যবস্থাপনায় ৭ হাজার ১৯৮ জন এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় এক লাখ ২০ হাজার জন হজ করতে পারবেন। প্রসঙ্গত, এবছর ২১ আগস্ট (চাঁদ দেখার উপর নির্ভরশীল) পবিত্র হজ পালিত হবে।  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *